ঈদের কেনাকাটায় যমুনা ফিউচার পার্ক

Post Iamge

Advertise

দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্কে এক প্যাকেজে মিলছে পরিবারের সব সদস্যের নতুন পোশাক।

একই ডিজাইন ও বাহারি রঙের এসব পোশাক ঈদকে করে তুলবে আরও আনন্দময় এমনটাই বলছেন ক্রেতারা। স্বামী-স্ত্রী, ছেলেমেয়েসহ সবাইকে রাঙানো যাবে একই ধরনের পোশাকে।

 

এছাড়া, জুটিদের পোশাকেও আনা হয়েছে রোমান্টিকতার ছোঁয়া। তবে বিক্রেতারা বলছেন, এবারের ঈদে সবচেয়ে আকর্ষণীয় হচ্ছে বাবা-ছেলে পাঞ্জাবি। মোটকথা ঈদ কেনাকাটায় ক্রেতাদের নজর কাড়ছে ফ্যামিলি প্যাকেজের পোশাক।

মঙ্গলবার দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক ঘুরে দেখা যায়, ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। সকাল থেকেই ক্রেতারা আসতে থাকেন এ শপিং মলে। দুপুর গড়িয়ে বিকালের দিকে এ ভিড় আরও বাড়তে থাকে। সন্ধ্যা নাগাদ লোকে-লোকারণ্য হয়ে পড়ে শপিং মল। কেনাকাটায় দরদাম করতে হয় না বলে উচ্চবিত্ত-মধ্যবিত্ত বিড়ম্বনাহীন কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করেন। এদিন বেশিরভাগ ক্রেতা ভিড় করেন দেশি পোশাক হাউসের শোরুমগুলোতে। এসব শোরুমে বিকাশ ও বিভিন্ন ব্যাংকের কার্ডে ১০ থেকে ২৫ শতাংশ ক্যাশ ব্যাক অফার চলছে।

শপিং মলে আসা ক্রেতারা বলছেন, যমুনা ফিউচার পার্কে তাদের আসার প্রধান কারণ, অনেক বড় পরিসরে মার্কেট। শোরুমগুলোও অনেক বড়। এতে অনেক লোক একসঙ্গে এলেও কেনাকাটায় কোনো ধরনের ঝামেলা পোহাতে হয় না। ধাক্কাধাক্কি হুড়াহুড়ি করতে হয় না।

এছাড়া একই ছাতার নিচে দেশি-বিদেশি সব নামি-দামি ব্র্যান্ডের শোরুম রয়েছে। মোটকথা একজন মানুষকে সাজানোর জন্য যা যা দরকার তার সব এখানে পাওয়া যায়। আর বাইরে অনেক গরম, সেক্ষেত্রে মার্কেটেরে ঠাণ্ডা পরিসরে কেনাকাটা করতে তাদের প্রথম পছন্দ দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক।

এদিকে মার্কেটের অঞ্জনস শোরুমে দেখা যায়, ঈদ ঘিরে ১৩ থেকে ১৫ আইটেমের ফ্যামিলি প্যাকেজ পোশাক রাখা হয়েছে। এ প্যাকেজের মধ্যে থাকছে- বড় ও ছোটদের পাঞ্জাবি-পায়জামা।

তরুণী ও নারীদের জন্য থ্রিপিস এবং শাড়ি। ছোটদের থ্রিপিস ও ফ্রক। এছাড়া জুটিদের ড্রেসের মধ্যে একই রঙ ও বাহারি ডিজাইনের পাঞ্জাবি-পায়জামা এবং মেয়েদের থ্রিপিস ও শাড়ি।

আউটলেট ম্যানেজার হাসনাত যুগান্তরকে বলেন, ঈদ ঘিরে আমরা নতুনভাবে ফ্যামিলি প্যাকেজ নিয়ে এসেছি। এছাড়া জুটিদের জন্যও আলাদা ডিজাইন করা পোশাক রয়েছে। সঙ্গে বাবা-ছেলের পাঞ্জাবি তো থাকছেই। তিনি আরও বলেন, এবারের ঈদে এ ফ্যামিলি প্যাকেজের পোশাক ৬ থেকে ১২ হাজার টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে।

শপিং মলের আড়ং শোরুম সাজানো হয়েছে ঈদ কালেকশনের পোশাকে। এবার মেয়েদের থ্রি-পিস, শাড়ি, ছেলেদের পাঞ্জাবিতে আনা হয়েছে নতুনত্ব। হাতের কাজের সঙ্গে এমব্রয়ডারির কাজ করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের পোশাকে।

এছাড়া বিশেষ আইটেম হচ্ছে ফ্যামিলি প্যাকেজ। সেখানে বাবা-মা ও সন্তানদের জন্য একই ডিজাইনের পোশাক পাওয়া যাচ্ছে। শোরুমের সেলস এক্সিকিউটিভ আতিকুর রহমান বলেন, রোজা শুরু হওয়ার আগ থেকেই বিক্রি শুরু হয়েছে।

আমরা ঈদের সবক’টি আইটেম ডিসপ্লে করেছি। ক্রেতারা ঘুরে ঘুরে দেখছেন। পছন্দ করে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। শপিং মলের নবরূপা শোরুমের কাউন্টার ম্যানেজার রাহাত যুগান্তরকে বলেন, এবার তারা ঈদ উপলক্ষে ফ্যামিলি ও কাপল প্যাকেজ এনেছেন। আর এ প্যাকেজে থাকছে শাড়ি, থ্রিপিস, ওয়ান পিস, পাঞ্জাবি ইত্যাদি। এসবের দাম রাখা হচ্ছে ২ থেকে ৩ হাজার টাকা। তিনি আরও বলেন, এবারের ঈদ বাজারে ফ্যামিলি প্যাকেজের কদর অনেক বেড়েছে। তাই বিক্রিও ভালো হচ্ছে।

 

কোটি টাকার ঈদ উপহার : ক্রেতাদের আনন্দ আরও বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে ‘কোটি টাকার ঈদ উপহার’ ক্যাম্পেইন চালু করেছে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ শপিং মল যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষ। এ অফারের আওতায় যমুনা ফিউচার পার্কের যে কোনো শোরুম থেকে মাত্র এক হাজার টাকার কেনাকাটা করে যে কেউ পেতে পারেন মোটরসাইকেল, টিভি, ফ্রিজ, স্বর্ণালঙ্কার, ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক আইটেমসহ নানা ধরনের পণ্য। এছাড়া প্রতিটি কেনাকাটার বিপরীতে ক্রেতারা নিশ্চিত উপহার পাবেন।

যমুনা ফিউচার পার্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোটি টাকার ঈদ উপহার ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণ করতে ক্রেতাকে যমুনা ফিউচার পার্ক থেকে এক হাজার টাকার কেনাকাটা করতে হবে। এরপর গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপ স্টোর থেকে যমুনা ফিউচার পার্ক অ্যাপ ডাউনলোড করে রেজিস্ট্রেশন করুন। এরপর কেনাকাটার বিবরণী দিলেই ক্রেতা তৎক্ষণাৎ নিশ্চিত উপহার পাবেন।

অন্যদিকে ক্রেতারা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে গিফট পেতে পারেন, সেজন্য ওয়েস্ট কোর্টে গিফটের পৃথক বুথ করা হয়েছে। অ্যাপসে তথ্য দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্রেতা তার গিফট বুথ থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। কোটি টাকার ঈদ অফার ক্যাম্পেইনের আপডেট তথ্য যমুনা ফিউচার পার্ক ফেসবুক পেজে

(www.facebook.com/JFPbangladesh) জানা যাবে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Add Comment

অন্যান্য সংবাদ